কবিতা

জলশ্রী বাণী ডিয়ায এর কবিতা || একান্তে নিভৃতে

একান্তে নিভৃতে নিঃশব্দে নিশীথের অন্ধকারে হারাই দু’জন
লুকানো ভাবনার সুধাময়ী অমলিন রস- ধারায় মিশে অকারণে
বারবার খুঁজে বেড়াই এ মেঘলা দিনের বন্দী নিয়মের মাঝে,
অনবরত চোখ যেনো তার পথের বাঁকে দাঁড়িয়ে শুধু একটি কথাই বলে যায় কখন পাবে তার দেখা নীল ধুসর মেঘের সাঁজে।
ঐ দূর আকাশের নীচে অমল এক ফালি কাঁচি রুপালী চাঁদ
ঘুমিয়ে আছে নীরবে উদাস করা হৃদয় নিয়ে একান্তে নিভৃতে
রবির ডুবে যাওয়ার পথ চেয়ে বসে আছে স্বপ্নীল আশায়,
মেঘের ফাঁকে ফাঁকে উড়ে চলে বাতাসের ছন্দে অজানার তরে
আর কখন জেগে উঠবে তার মিষ্টি মৃদু আলোর ঝর্ণা ধারায় ।
অতিথি সবিতা যায় হেসে হেসে ঝলমলিয়ে কিরণে কিরণে
নীল আকাশের নীরব কথা বেজে উঠে গোধূলির বীণার তারে,
ভাসিয়ে সে সুরে শিশির ভেজা ব্যাকুলতার ঠুনকো তরীখানি করুণ নয়নে হিমকণা মিশে যায় ভরা নদীর অমল জলধারে । বেলী-চামেলীর সুবাসিত বাতাসের ছন্দে ছন্দে হারিয়ে যায়
ছোট্ট সেই নাম না জানা হলদে পাখিটি একান্তে নিভৃতে কুঞ্জে, শেফালী বনের মনের কামনা গুলো আনমনা শিহরিত হয়ে যায়
না বলা কথা পাগল হাওয়ায় ভ্রমর হতে উড়ে চলে….

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *