কবিতা

নাঈম মাহমুদ মিথেল এর কবিতা || দেশের দুর্গতি

দেশের জন্য ধরেন যারা জীবনবাজি।
তাদেরকেই পায়ে পিষে বাঙালী জাত এতই পাজি।
দেশের ভালো মানুষ যতো,তারাই শেষে হয়রে নতো।
কুকুর আর শুয়োরগুলো মুখোশ পরে ভালো মানুষ সাজে।

দেশে এখন যারা যারা মানবাধিকারের কথা বলে,
দেখবেন তারাই মানবতার শত্রু তলে তলে।
কেউ দুর্নীতির বিরুদ্ধে বলছে হাততালি দিবেন না,
হয়তো সে সুযোগ পাচ্ছে না নয়তো গোপনে সেও ভাগ ছাড়ছে না।

আর দেশের নেতাদের কথা যদি বলি,
ভাবখানা এমন দুধে ধোঁয়া পুষ্প কলি।
দেশের মানুষদের তারা জিম্মি করে রেখেছেন,
বিদ্রোহ করেছেন তো ফেঁসেছেন।

মন্ত্রি – এমপিরা তো সিদ্ধহস্ত মহাপুরুষ রাম
দেশটায় তাদেরই রাজত্ব চলছে
কুকর্ম সব মাফ নিলেই তাদের নাম।
স্লোগান দিন জয় জয় নেতাকি জয় হে,
নেতা আছেন মসনদে নাই ভয় হে।
আর যদি বদনাম করেছেন,
দেখবেন কখন কোন প্যাঁচে আটকে গেছেন।

আর দেশের সংবাদ মাধ্যম মিডিয়া তারা তো স্বাধীন,
যত পারছে তত ঢালছে,
তারা তৈলের এত ব্যবহার করছে, কিছুদিন পর তেল ফরেন থেকে আমদানি করতে হবে কিনা তা ভাবা হচ্ছে।

দেশের বিরোধী দল আহা বড্ড মায়া হয়,
এখন তো কত ভালো ভালো কথা কয়।
ক্ষমতায় এলে তারাও নাইন্টি ডিগ্রি এঙ্গেলে বেঁকে যায়।
সবাই যা পায়,
লুটে পুটে খায়।

দেশের পুলিশ,প্রশাসন তাঁদের সততার কথা আজ নাইবা বলি,
মুক্তি যোদ্ধারাও তাঁদের স্যালুট নিতে চান না
ভোলায় দেখলাম খেলল রক্তের হলি।

আর আমরা সাধারণ জনগন শুধুই রাসলীলা দেখতেই ব্যস্ত,
চকলেটের মতন দেশটারে চুষে খায় যারাই ক্ষমতা পায়।
পাবলিক বেশ আছে খাচ্ছে-দাচ্ছে,চিবুচ্ছে আর ঘুমোচ্ছে।
প্রতিবাদ করেই বা কি হবে,
এত তাড়াতাড়ি জমের দুয়ারে টিকেট বুকিং দেয়ার ইচ্ছে কারই বা আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *