কবিতা

নাজমা বেগম নাজু’র কবিতা || রোদেলা পাতার অবাধ সূর্য তুমি

 

তুমি রোদেলা পাতার
অবাধ শিশির হবে
ভেবেছিলাম,তুমি পাখির নীড়ে জ্বলে ওঠা অমলিন জ্বোনাক হবে,
শরীর জোড়া আলো নিয়ে
সূর্যকে ফেলবে ভীষন লজ্জায়।
মানুষের কাছাকাছি আমাদের পৃথিবীতেই থাকবে তুমি,
জনমভর প্রিয় উঠোনের ছায়া হবে
খরতাপ হতে বাঁচাবে স্বজন -ঘর।
তুমি কিনা আকাশ হলে?
দুর হতে দুর—
দুরত্বের রোদ নীল সূর্যকণা?
শ্রেষ্ঠ রাতের জোছনা পরাগ?
নক্ষত্র বীন?
অরণ্য চূড়ার অসীম সূর্যালোকে
পাখিদের বর্ণিল ডানায়
আলো হয়ে হারালে তুমি।
ওরা রোজ কাঁদে
ভেজা ডানার পাখি-
নীড়ে ফেরা সব পাখি আজো!
রংবাহারি সব ফুল আজো
কাঁদছে তোমার জন্য।
এতটাই ছোট্ট ছিলে তুমি
অথচ কি বিষন্ন বিশালতায়
শূণ্য করে গেলে
কোটি হৃদয়ের লোকালয়।
হৃদয়ের ঘর খাঁ খাঁ করে
কিছুতেই ভরে নাতো মন,
শোকের বর্ষা দেখো
ঝরে বারমাস।
প্রিয় রাসেল,আমাদের ছোট্ট সোনামনি—
চাঁদের সুবাস মাখাব তোমার গায়
সবটুকু আদর সবার–
আমাদের সব ভালবাসা,
সবাই মিলে জমিয়ে রেখেছি
তোমার জন্য।
শুধু একবার ফিরে এসো তুমি
তোমার প্রিয় সাইকেল
হাসু আপা,
আর টমি—?
সেই যে আদরের কুকুরছানা তোমার-
আজন্ম অপেক্ষায় তোমার,
আজো তারা দিশেহারা
তোমার খোঁজে।
তোমার স্বদেশ,জন্মভূমি
দেশের মানুষ
আজো ভেজা চোখে
তোমাকে পাবার স্বপ্ন দেখে।
তুমি আর আসবে না রাসেল?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button