জাতীয়

প্রচার শুরুর পর আ. লীগ বেশি হামলার শিকার: এইচ টি ইমাম

সংসদ নির্বাচনের প্রচার শুরুর পর দেশের বিভিন্ন জায়গায় সহিংস ঘটনায় আওয়ামী লীগই আক্রমণের শিকার হচ্ছে বেশি বলে দাবি করেছেন এইচ টি ইমাম।

বুধবার নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা ইমাম সাংবাদিকদের বলেন, “আমাদের দুইজন নেতাকর্মী নিহত হয়েছেন। আওয়ামী লীগের ওপরই বেশি হামলা হচ্ছে। তৃণমূলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে আওয়ামী লীগের এমন নেতাকর্মীদের উপর বেছে বেছে আক্রমণ হচ্ছে।”

অভিযোগ করে তিনি বলেন, আমাদের কাছে তালিকা আছে কোথায় কোথায় আ.লীগের কর্মীদের মারধর করা হচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনে এসব অভিযোগ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

সাংবাদিকদের সামনে তিনি বিএনপি মহাসচিবের গাড়িতে হামলার বিষয়ে মন্তব্য করে বলেন, এ হামলা তাদের মনোনয়ন বাণিজ্যের ফল। “বিএনপির পুরানা পল্টন ও গুলশানে মনোনয়ন বাণিজ্য নিয়ে তুমুল তোলপাড়ের বহিঃপ্রকাশই মির্জা ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা। তার দলেরই লোকেরা নিজেদের মধ্যে মারামারি করেছে। আওয়ামী লীগের কেউ ছিল না সেখানে।”

সহিংসতার খবর প্রচারে সংবাদমাধ্যমে বস্তুনিষ্ঠ হওয়ার অনুরোধ জানিয়ে এইচ টি ইমাম বলেন, “এ বিষয়গুলো যাচাই-বাছাই করে এমনভাবে উপস্থাপন করবেন যাতে শান্তিশৃঙ্খলা বজায় থাকে।”

নির্বাচন কমিশন সহিংসতা ঠেকাতে ব্যর্থ কি না এমন প্রশ্নে এইচ টি ইমাম বলেন, “ব্যর্থতা বলব না, তাদের সতর্ক করেছি। বলেছি, নির্দেশ দেন দোষী ব্যক্তিদের সুনির্দিষ্টভাবে চিহ্নিত করে যেন ব্যবস্থা নেয়।”

গুজব ও মিথ্যা তথ্য প্রচার করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট না করার অনুরোধ রাখেন এইচ টি ইমাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *