কবিতা

ফিরোজা সামাদ এর কবিতা || বোধের সিঁড়িতে আদিম উল্লাস

নৈরাশ্যের ভারে নোয়ানো হৃদয়
নিঃসঙ্গ স্মৃতিকাতর এক শালিকের মতো
তোমার কাছে কি সবই ম্লান ?
কৃত্রিমতার চমকপ্রদ ঘোরলাগা
নতুন ভোর যেনো এক শরতের পালক
আমার অন্ধ প্রচেষ্টায় দেখো সহজ সরল উপলব্ধি ||

হাজারো কবিতায় পৃথক রেখার মাঝে
নীরবে আমি একে যাই শ্রমঘন কারুকাজ
বেদনার্ত ভাষায় নিরবধি থাকবে তুমি
স্বপ্ন তাড়িত হয়ে শৈশবের ঝাপসা ঘ্রাণে
অমৃত কথায় তোমার সাজানো বাগানে
আমি যেনো এক বেদনার আমিষ ||

জীবনে সত্য যখন ঘৃণার চরম ছায়া হয়ে অাসে
তখন বহুদিনের চেনা পথকেও মনে হয়
এ যেনো প্রথম দেখা অচেনা কোনো পথ
আমার ভালোবাসার জলসীমানায়
কখনো এসোনা তুমি তাহলে তোমায় যে
শুনতে হবে অদৃশ্য কোনো দুঃখের পাচালি ||

তুমি কি গোলকধাঁধা দেখেছো কভু?
সেই ধাঁধা যেনো এক স্বাপ্নিক বিহ্বল নদী হয়ে
কেঁদে যায় নিরবধি তার প্রণয় সংগীতের সুরের তানে
আজকাল আমি ধোঁয়াশাচ্ছন্ন মায়াজালে আবৃত
আলো ঝলমলে কাব্যের বাসনা যেনো
অনিবার্য এক চরম আহ্বান ||

প্রভাতের আলোতে দেখি মেহেদির রঙ মাখা
তোমার ভালোবাসাই সৃষ্টি করে অনিবার্যতা
ভালোবাসা হলো কঠিন-বায়বীয়-তরলে শূন্য
আজ মানুষের বোধের সিঁড়ি বেয়ে গড়িয়ে পড়ে
হৃদয়ের আদিম উল্লাস
অনাচারে ডুবে গেছে সত্ত্বার বিবেক
আর উথাল পাথাল ঢেউয়ে ভাসছে রক্তশূন্য
ফ্যাকাশে হৃদয়
সে হৃদয়ের কান্না কেউ শুনতে পায়না
না তুমি, না আমি, না অন্য কোনোজন ||

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button