সোশ্যাল মিডিয়া

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি সাধুবাদ জানালো হাবিবকে

বিনোদন প্রতিবেদক : দীর্ঘদিন যাবত তিনশত নির্বাচনী আসনে সিনেপ্লেক্স নির্মাণের দাবী জানিয়ে আসছেন বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাণ্ড মিডিয়া সোসাইটির সভাপতি ও চলচ্চিত্র পরিচালক হাবিবুল ইসলাম হাবিব। গেলো ২১ আগস্ট প্রযোজক সমিতির এক চিঠি মারফত তার এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে।
‘সিনেমা সুন্দর বাংলাদেশ’ গড়ার স্বপ্নে গেলো প্রায় দুই বছর যাবত একাই একটি দাবী নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করার এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেন উদ্যোগ নেন সেই ব্যাপারে জোর দাবী জানিয়ে আসছেন ‘রাত্রির যাত্রী’খ্যাত বিশিষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালক হাবিবুল ইসলাম হাবিব। গেলো বছর চলচ্চিত্র দিবসে নিজের সিনেমার প্রচারণা করতে গিয়ে একটি স্যাটেলোইট চ্যানেলে আলোচনায় প্রসঙ্গে তিনি প্রথম এই দাবীর কথা তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রী চাইলেই দেশের তিনশত নির্বাচনী আসণে তিনশত সিনেপ্লেক্স গড়ে তোলা সম্ভব। শুধু প্রত্যেক আসনের মাননীয় সংসদ সদস্যদের দূরদর্শী চিন্তা এবং আগ্রহই হাবিবের এই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হতে পারে। হাবিব জানান, এরইমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর গেলো ২০ জানুয়ারি এ বিষয়টি তুলে ধরে একটি আবেদনও করেছেন। যাতে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষিত হয়। হাবিবুল ইসলাম হাবিব বলেন, আমাদের শ্রদ্ধেয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চলচ্চিত্র বান্ধন। তিনি চলচ্চিত্র উন্নয়নে নানা উদ্যোগ নিচ্ছেন।

আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন করে দিয়ে গেছেন। এবার আমাদের প্রানপ্রিয় মমতাময়ী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের দাবী বাস্তবায়ন করে দিবেন ইনশাআল্লাহ। দেশের তিনশত আসনে যদি সিনেপ্লেক্স হয় তাহলে এলাকাভিত্তিক সার্বিক পরিবেশই বদলে যাবে। দেশের সংস্কৃতিতে এখন যে অস্থিরতা বিরাজ করছে , তা কেটে যাবে। কারণ সিনেপ্লেক্সকে ঘিরেই তখন অনেক কাজ হবে। প্রযোজক, পরিচালক, কাহিনীকার, সর্বোপরি সিনেমা নির্মাণও বেড়ে যাবে। সিনেপ্লেক্সের সুন্দর পরিবেশ সিনেমা দেখতে দর্শককে হলমুখী করবে। সর্বোপরি একটি সিনেমা সুন্দর বাংলাদেশ’এ পরিণত হবে এই দেশ। শুধু তাই নয় তখন সিনেমায় বিনিয়োগ বেড়ে যাবে। বদলে যাবে এদেশের সিনেমার পরিবেশ। সিনেমা ফিরে পাবে তার হারানো সেই
ঐতিহ্য।’ বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাণ্ড মিডিয়া সোসাইটির সভাপতি হাবিবুল ইসলাম হাবিব মনে করেন তার স্বপ্ন একদিন নিশ্চয়ই পূরণ হবে। হাবিবুল ইসলাম হাবিব গ্রুপ থিয়েটার ফেযডারেশন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, শর্ট ফিল্ম ফোরামের সাথে শুরু থেকেই সম্পৃক্ত। আশির দশকের শুরুতে ‘বখাটে’ এবং নব্বই দশকের শুরুতে
‘বিজয় নব্বই’ শর্টফিল্ম নির্মাণ করে আলোচনায় আসেন তিনি। তার ‘প্রেক্ষাপট’ নাটদলের ‘ইদানীং তিনি ভদ্রলোক’ মঞ্চ নাটকটি মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক অন্যতম আলোচিক একটি মঞ্চ নাটক। তার নির্মিত প্রথম এবং একমাত্র সিনেমা ‘রাত্রির যাত্রী’। এতে অভিনয় করেন প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী, এটিএম শামসুজ্জামান’সহ আরো অনেকে।

 

ছবিঃ বাপ্পি সাহা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *