কবিতা

মতিয়ারা মুক্তা’র কবিতা || রাঙামাটির রাঙা বেলায়

তবে আমার কেমন যেন মনে হচ্ছে
এটি সদ্য ভূমিষ্ঠ একটি কবিতা
কবিতার প্রতিটা চয়নে আমি তো
আমি তো আমাকেই পেলাম
আমি জানি না তুমি এটি কেন লিখেছিলে;
তবে,তবে মনে করছি হয়তো আমার জন্যই।

তোমার কথাতে আমি মাদকের গন্ধ পাই
মাদক মেশানো প্রতিটা শব্দ আমাকে টানে
আমি নেশাখোর মাতালের মতো
ঢুলুঢুলু সর্বক্ষণ
মিশে একাকার তোমাতে

তোমার চুম্বণে অমৃতের স্বাদ
ভেজা চুলে নেশানেশা
চোখের অতল সাগরে হাবুডুবু
নাইবা হলো এমন কিছু
তাতে কি বা ক্ষতি বলো-

গতকাল একটি গান শোনালে
যে গানটা পার্বত্য রাঙামাটির পাহাড়ে
আঘাত আঘাত পেতে পেতে
আমার হৃদয়ে বাজে সর্বক্ষণ
হয়তো হয়তো তুমি জানতেই না
তুমি জানতেই না যে
কেউ তোমার গানটা রিংটোন বানিয়ে
হৃদয় মেমোরিতে শোনে
আর জানবেই বা কেমন করে
তুমি তো তুমি তো আবার
ব্যস্ত প্রেমের মহাযজ্ঞে

রাঙামাটিতে সেদিন প্রতিজ্ঞা করেছি
আমি তোমাকে আমি তোমাকে বুকে আগলে রাখবো আমার মতো করে
এবং পেরেছি

তুমি একজন কবি
আর কবি মানেই তো প্রেমের কারখানা
যেখানে শ্রমিকের অভাব নেই
নাইবা দিলে বেতন

গতরাতের মতো
একটি করে গান শোনাবে
পার্বত্যভূমির সেই গান
এর থেকে বেশি কিচ্ছু চাইনা আর
চাইবো কি?তুমি নিজেই তো শূণ্য
সমাজ সংসার সব তো আছে তোমার
হয়তো আমি-ই ছিলাম না
তবে তুমি আমার ছিলে
রাঙামাটির রাঙা বেলায়…

Leave a Reply