কবিতা

মারইয়াম মনিকা এর কবিতা || সরল জ্যামেতি

 

তুমি-আমি আমরা সবাই তাকিয়ে দেখছি
মানব সার্কাস, ধূর্ত শিয়ালের কোমড় দোলানো নাচ
আর শুনছি মা-হাতিটির প্রসব বেদনার চিৎকার…
সজল বর্ষায় কুমিরের ভেসে থাক চোখে
আশ্রয় খুঁজে নেয় পোনামাছের ঝাঁক

বেশ উতলা হয়ে নির্বোধের মতো হাসতে থাকে মেছো বক
রাতের অন্ধকারে জ্বলে ওঠে ভুতের আগুন।
আভিজাত্যের আবর্জনায় মুখ লুকিয়ে থাকে শব্দহীন সময়
মেরুদন্ড ভাঙা-হাত আঁকতে চায় কঠিন জ্যামেতি
উদাসীন বাউলের চুলে বুনে যায় নিঃসঙ্গ নিরবতা
মার্সেডিসের চাকায় পিষে যায় শিশু-স্বপ্ন।

আয়নার ভাঙা কাঁচে সূর্যের বিকিরণ
নদীর ওপারে গড়মিল প্রেমের দীর্ঘশ্বাস
পলিমাটির বুকে হারিয়ে গেছে আউস-আমনের গন্ধ।
ক্রমশ শীতল হয়ে যায় হৃদয়ের উত্তাপ

নিভৃতে ভাঙতে থাকে জীবনের কূল
আমরা দূরন্ত বাছুরের মতো ছুটোছুটি করি
তারপর মিলিয়ে যাই একয়ে-দুইয়ে; দুই-দুই চারে।

Leave a Reply