গল্প

সাব্বির হোসেন বাপ্পি’র গল্প || বড়ই জানতে ইচ্ছে করে

হাজার বছর পথ হেটে আজ
বড়ই জানতে ইচ্ছে করছে, কি এমন ভালোবাসা তুমি পেয়েছো, তুমি কতটুকু সুখি হতে পেরেছো? বড়ই জানতে ইচ্ছে করে।তুমি কি সেই অাগের মতই অাছো? নাকি অনেক টুকুই বদলে গেছো? অাচ্ছা তোমার কি মনে পড়েনা? অামাদের সেই স্বপ্নের দিনগুলির কথা? তুমি এত্তসব ভুলে কেমনে রয়েছো অন্যের ঘরে? শুধু একটি বার জানতে ইচ্ছে করে।হাজার ও প্রেমিকের মাঝে তোমার কাছে ছিলাম অামি সেরা একজন। তবে অাজ কেনো তুমি অন্যের ঘরণী? বড়ই জানতে ইচ্ছে করে! তুমি জানো? তোমাকে হারিয়ে অাজ কতটা নিঃস্ব হয়ে জীবন কাটাচ্ছি? কখন ও কি জানতে চেষ্টা করেছো? কেনই বা জানবে তুমি? তুমি তো অাজ অট্টালিকায় সুখের বসবাস করছো। সেদিন অাবুল কাকার মুখে শুনলাম, তুমি নাকি অাজ নিজের সংসার সাজাতে ব্যস্ত? অথচ তুমি বলতে অামার জায়গায় অন্যজন হলে তুমি নাকি সহ্য করতে পারবে না। তবে অাজ কেনো এত পরিবর্তন? বড়ই জানতে ইচ্ছে করে। হাজার ও স্মৃতি অাজ বুকের মাঝে কবর দিয়ে, বেঁচে অাছি এই অামি। বিশ্বাস করবে? এতদিনেও তোমাকে একটি সেকেন্ডের জন্য ভুলতে পারলাম না। কি অদ্ভুত জীবন তাইনা? একজন সুখের সংসার সাজাতে ব্যস্ত! অন্যজন প্রতিটি প্রহরে তার অশ্রু ভেজা নিদ্রার বালিশ লুকাতে ব্যস্ত। অাহা জীবন!!
কষ্টের অবনলে পুঁড়ে পুঁড়ে অাজ ছাই হয়ে গেছি।কখনই জানার চেষ্টা করো নি। তোমার দেওয়া ভালোবাসা গুলি অাজ বিশাক্ত সাপের ফণা তুলে প্রতিনিয়ত এই বুকের মাঝে, তুমূল বেগে তান্ডব চালায়, অামার এই প্রতিটি অঙ্গের ভেতর। অামি আহত হয়ে যাই কিছু সময়ের জন্য, ঠিক গলা কাটা মুরগীর মতো ছটফট করতে থাকি, কেউ অাসেনা অামার কাছে চিৎকার শুনে। সবাই দূরে চলে যায় আমার যন্ত্রনা দেখে, অামি তখন নীরব হয়ে কাঁদি। এভাবেই চলছে অামার জীবন প্রতিনিয়ত। যা তুমি একবার ও জানতে এলে না।কতটুকু নিষ্ঠুর হয়েছো? বড়ই জানতে ইচ্ছে করে!!!!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button